Education

লাখো কন্ঠে সোনার বাংলা

lakhokonthe

আসুন শিখি

•  স্বাধীনতা দিবসে লাখো জনতা সমবেত কণ্ঠে গাবে বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীত

•  বাংলাদেশ সরকারের সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে আয়োজনটির সহযোগিতায় রয়েছে বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী

•  প্রায় তিন লাখ মানুষের সম্ভাব্য অংশগ্রহনে সৃষ্টি হবে নতুন বিশ্ব রেকর্ড

লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা লোগো

ঢাকা, মার্চ ২, ২০১৪: জাতীয় চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে বাংলাদেশের ৪৩তম স্বাধীনতা দিবস উদযাপনের লক্ষ্যে প্রায় তিন লাখ মানুষের সম্ভাব্য অংশগ্রহনে গাওয়া হবে বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীত। মার্চ ২৬, ২০১৪ তারিখে অনুষ্ঠিতব্য “লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা” শীর্ষক এই আয়োজনটির ঘোষণা দিয়েছেন বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর, এমপি। আজ জাতীয় শিল্পকলা একাডেমীতে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই ঘোষণা প্রদান করেন মাননীয় মন্ত্রী।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন তথ্য মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, এমপি; বাংলাদেশ সরকারের সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাননীয় সচিব ড: রঞ্জিত কুমার বিশ্বাস, এনডিসি; সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার লে: জেনারেল আবু বেলাল মোহম্মদ শফিউল হক; এনডিসি, পিএসসি; নবম ডিভিশন জিওসি মেজর জেনারেল চৌধুরী হাসান সোহরাওয়ার্দী, বীর বিক্রম, এনডিসি, পিএসসি; সেনাবাহিনী সদর দপ্তরের অ্যাডজুটেন্ট জেনারেল মেজর জেনারেল আশরাফ ইউসুফ আবদুল্লাহ এনডিসি, পিএসসি এবং সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের প্রধান সমন্বয়কারী কমোডোর এমদাদুল হক ডিজি, সিএমআর, এএফডি।

“লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা” আয়োজনটির প্রধান উদ্যোক্তা হিসেবে রয়েছে বাংলাদেশ সরকারের সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং সার্বিক সহযোগিতায় রয়েছে বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী। স্বাধীনতা দিবসে এই আয়োজনটি সফল করতে লাখো মানুষ জড়ো হবে জাতীয় কুচকাওয়াজ ময়দানে। প্রায় তিন লাখ মানুষের সম্ভাব্য অংশগ্রহনে এই দিন সৃষ্টি হবে নতুন এক আনুষ্ঠানিক বিশ্বরেকর্ড।

এই ঘোষণা ছাড়াও সংবাদ সম্মেলনে “লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা” আয়োজনটির আনুষ্ঠানিক লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা এর লোগো লোগো উন্মোচন করা হয়। মাননীয় সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর , এমপি এবং সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার লে: জেনারেল আবু বেলাল মোহম্মদ শফিউল হক, এনডিসি, পিএসসি এই লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা লোগো উন্মোচন করেন।

এই আয়োজন সম্পর্কে মাননীয় সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর, এমপি বলেন, “এই আয়োজনের আমাদের মূল লক্ষ্য হচ্ছে একত্রিত হয়ে মহান স্বাধীনতা দিবসকে নতুন আঙ্গিকে উদযাপন করা। জাতীয় চেতনার এক নব জাগরণে এক নতুন বিশ্ব রেকর্ড সৃষ্টি হবে বলে আমাদের বিশ্বাস।”

সংবাদ সম্মেলনে লে: জেনারেল আবু বেলাল মোহম্মদ শফিউল হক, এনডিসি, পিএসসি এই উদ্যোগে সশস্ত্র বাহিনীর সার্বিক সহায়তা প্রদানের অঙ্গীকার প্রদান করেন। এসময় তিনি আয়োজনে সশস্ত্র বাহিনীর ভূমিকা বিভিন্ন দিক সহ অন্যান্য বিস্তারিত তুলে ধরেন।

মার্চ ২৬, ২০১৪ তারিখে আয়োজিত এই উদ্যোগে জাতীয় সঙ্গীত পরিবশনে অংশগ্রহন করবে স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী, সশস্ত্র বাহিনীর সদস্য সহ সমাজের সর্বস্তরের প্রতিনিধিরা।

লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা লোগো'(prothomalo)
‘লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা’ কর্মসূচির ‘লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা’ কর্মসূচির সর্বশেষ অগ্রগতি বিষয়ে জাতীয় প্যারেড স্কোয়ারে প্রেস ব্রিফিং অনুষ্ঠান
বাংলাদেশের জাতীয় সংগীত ও গাওয়ার জন্য জাতীয় সঙ্গীতের পূর্ণপাঠ [Most Popular National anthem of Bangladesh 2022]
সোনার বাংলা লোগো