ভোক্তা আচরণের বৈশিষ্ট্যসমূহ আলোচনা কর

0
70

ভোক্তা আচরণের বৈশিষ্ট্য

ভোক্তা আচরণের বৈশিষ্ট্যসমূহ
ভোক্তা আচরণের বৈশিষ্ট্যসমূহ

উত্তর : ভূমিকা : ভোক্তার আচরণ ‍চ্ছে কতিপয় কাজের সমষ্টি যা দ্বারা পণ্য বা সেবা ক্রয়ের সিদ্ধান্ত প্রভাবিত হয়। বিভিন্ন ধরনের বাহ্যিক ও অভ্যন্তরীণ উদ্দীপক ভোক্তা আচরণকে প্রভাবিত করে। ভোক্তা কি ক্রয় করবে, কেন ক্রয় করবে, কিভাবে ক্রয় করবে, কোথা থেকে ক্রয় করবে ইত্যাদি বিষয় ভোক্তা আচরণের সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত। ফলে ভোক্তা আচরণের বেশ কিছু বৈশিষ্ট্য লক্ষ্য করা যায়। কতিপয় বৈশিষ্ট্য নিম্নে আলোচনা করা হলো :

ভোক্তা আচরণের বৈশিষ্ট্য

১. প্রেষণাগত আচরণ : ভোক্তার আচরণ প্রেষণা দ্বারা পরিচালিত হয়। জন্ম থেকে মৃত্যু পর্যন্ত একজন ব্যক্তি কোন না কোন অভাব দ্বারা তাড়িত হয়। এ অভাব মেটানোর জন্য ব্যক্তি সর্বদা সচেষ্ট থাকে। একটি চাহিদা মিটে গেলে আরেকটি চাহিদা অনুভব করে। চাহিদা মেটানোর ক্ষেত্রে প্রেষণা ব্যক্তিকে তাড়িত করে। তাই ভোক্তা আচরণকে প্রেষণাগত আচরণ বলা যায়।

২. শিক্ষালব্ধ আচরণ একজন ব্যক্তির আচরণের প্রতিটি দিকই তার শিক্ষালব্ধ অভিজ্ঞতার প্রত্যুত্তর। প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ অভিজ্ঞতার মধ্য দিয়ে ব্যক্তির আচরণের পরিবর্তন ঘটে। অর্থাৎ শিক্ষণ আচরণের পরিবর্তন করে।

৩. বিভিন্ন কার্যক্রমের মধ্যে সমন্বয় ক্রয়ের পূর্বে ভোক্তা পণ্যটি সম্পর্কে জানতে চেষ্টা করে। পণ্যের প্রয়োজনীয়তা নির্ধারণ, পণ্য সংক্রান্ত তথ্য অনুসন্ধান, সংগৃহীত তথ্যের ভিত্তিতে বিকল্প পণ্যসমূহ মূল্যায়ন, প্রয়োজনীয় পণ্য নির্ধারণ, ক্রয় সিদ্ধান্ত গ্রহণ ইত্যাদি বিভিন্ন কাজ সম্পাদন করতে হয়….

৪. সিদ্ধান্ত প্রক্রিয়া : ভোক্তার আচরণ সিদ্ধান্ত গ্রহণ প্রক্রিয়ার ফলে সৃষ্টি হয়। অর্থাৎ কোন্ পণ্য বা সেবা ক্রয় করবে সে সম্পর্কে ব্যক্তি সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। এরূপ ক্ষেত্রে ভোক্তা একটি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে থাকে। যেমন- গাড়ী ক্রয়ের ক্ষেত্রে ক্রেতা গাড়ীর বিভিন্ন কার্যকর বৈশিষ্ট্য তথা : গাড়ীর ইঞ্জিনের শক্তি, বহন ক্ষমতা, প্রতি লিটার জ্বালানি তেলে চলার ক্ষমতা; বাহ্যিক সৌন্দর্য, অভ্যন্তরীণ সাজসজ্জা ও সুবিধা ইত্যাদি বিবেচনা করে।

৫. মানসিক প্রক্রিয়া ভোক্তার আচরণ কতিপয় আন্ত ঃক্রিয়াশীল পদক্ষেপের সমষ্টি। অর্থাৎ- ভোক্তার ক্রয় সিদ্ধান্ত প্রক্রিয়া কতিপয় বিশ্বাস দ্বারা প্রভাবিত হয়। যেমন- আবেগপ্রসূত সাড়া, নান্দনিক আনন্দ অথবা আনন্দদায়ক অনুভূতি ইত্যাদি। তাই ভোক্তার আচরণকে মানসিক প্রক্রিয়া বলা যায়। ( ভোক্তা আচরণের বৈশিষ্ট্যসমূহ)

৬. সময় ও জটিলতার কারণে আচরণের ভিন্নতা : সময় ও জটিলতার কারণে ভোক্তার আচরণে ভিন্নতা দেখা যায়। একজন ব্যক্তির আচরণ বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন ধরনের হয়। এক্ষেত্রে সিদ্ধান্ত গ্রহণের সময়টি বিবেচ্য। যেমন- জরুরী প্রয়োজনের ক্ষেত্রে ক্রেতা পণ্যের মূল্য বিবেচনা করে না, যে কোন মূল্যেই পণ্যটি ক্রয় করে। তাছাড়া, পণ্য ব্যবহারের জটিলতা ভোক্তার আচরণে প্রভাব সৃষ্টি করে।

আরো ভালো করে জানতে ভিজিট করুন Click here

বাজারজাতকরণ ব্যবস্থাপনার দর্শনসমূহ আলোচনা কর।