প্রশ্ন ॥২.২০॥ ব্যষ্টিক পরিবেশের উপাদানসমূহ কিভাবে বাজারজাত করণে প্রভাববিস্তার করে তা আলোচনা কর?অথবা, বাজারজাতকরণ পরিবেশের ব্যষ্টিক উপাদানগুলো আলোচনা কর ।

0
59

প্রশ্ন ॥২.২০॥ ব্যষ্টিক পরিবেশের উপাদানসমূহ কিভাবে বাজারজাত করণে প্রভাববিস্তার করে তা আলোচনা কর?
অথবা, বাজারজাতকরণ পরিবেশের ব্যষ্টিক উপাদানগুলো আলোচনা কর ।

উত্তর : ভূমিকা : একটি প্রতিষ্ঠানের বাজারজাতকরণ কার্যক্রমকে যে সকল উপাদান প্রত্যক্ষভাবে প্রভাব বিস্তার করে সেগুলোর সমষ্টিকে ব্যষ্টিক পরিবেশ বলে।

বোস্টন কনসাল্টিং গ্রুপের প্রবৃদ্ধি শেয়ার মেট্রিক্সকে চারভাগে ভাগ করে বিভিন্ন কৌশলগত ব্যবসায় এককের বাজার প্রবৃদ্ধির হার ও তুলনামূলক বাজার শেয়ার দেখানো হয়েছে। নিম্নে এগুলো সম্পর্কে বর্ণনা করা হলো-

১. কোয়েশ্চেন মার্কস : কোয়েশ্চেন মার্কস হচ্ছে উচ্চ বাজার প্রবৃদ্ধি ও নিম্ন তুলনামূলক বাজার শেয়ার সম্পন্ন ব্যবসায় বা পণ্যসমূহ ।

এ প্রসঙ্গে Philip Kotler & Gary Armstrong বলেন, (কোয়েশ্চেন মার্কস হচ্ছে উচ্চ বাজার প্রবৃদ্ধি ও নিম্ন বাজার শেয়ার সম্পন্ন ব্যবসায় এককসমূহ)। এ সকল ব্যবসায় এককের বাজার শেয়ার বৃদ্ধির জন্য প্রচুর নগদ টাকা বিনিয়োগ করতে হয়। কোম্পানিকে বিবেচনা করতে হবে কোন কোয়েশ্চেন মার্ক ব্যবসায় একেকটিকে স্টারে রূপান্তর করা যাবে এবং কোনটিকে বাদ দিতে হবে।

২. স্টারস : স্টারস হচ্ছে উচ্চ প্রবৃদ্ধি ও উচ্চ বাজার শেয়ার সম্পন্ন ব্যবসায় একক বা পণ্যসমূহ।

এ প্রসঙ্গে Philip Kotler & Gary Armstrong বলেন, (স্টারস হচ্ছে প্রবৃদ্ধি ও উচ্চ বাজার শেয়ার সম্পন্ন ব্যবসায় বা পণ্যসমূহ) এ ধরণের ব্যবসায়ের দ্রুত প্রবৃদ্ধির জন্য ব্যাপক বিনিয়োগ প্রয়োজন হয়। অবশ্য এ সকল ব্যবসায়ের প্রবৃদ্ধি এক সময়ে কমে আসে এবং তখন এরা ক্যাস কাউজ-এ পরিণত হয়।

৩. ক্যাস কাউজ : নিম্ন প্রবৃদ্ধি এবং উচ্চ বাজার শেয়ার সম্পন্ন ব্যবসায় বা পণ্যকে বলে ক্যাস কাউজ।

এ প্রসঙ্গে Philip Kotler & Gary Armstrong বলেন, (ক্যাস কাউজ হচ্ছে নিম্ন প্রবৃদ্ধি ও উচ্চ বাজার শেয়ার সম্পন্ন ব্যবসায় বা পণ্যসমূহ)। এসকল ব্যবসায়ে অল্প বিনিয়োগ দ্বারাই বাজার শেয়ার ধরে রাখা যায়। এ সকল ব্যবসায় বা পণ্য হতে কোম্পানির প্রচুর অর্থ অর্জিত হয় যা দ্বারা বিভিন্ন দেনা পরিশোধ ও অন্য ব্যবসায় এককে বিনিয়োগ করা হয়।

৪. ডগস : নিম্ন বাজার প্রবৃদ্ধি ও নিম্ন বাজার শেয়ার সম্পন্ন ব্যবসায় বা পণ্যসমূহকে ডগস বলে ।

Philip Kotler & Gary Armstrong এর মতে, (ডগস হচ্ছে নিম্ন প্রবৃদ্ধি ও নিম্ন বাজার শেয়ার সম্পন্ন ব্যবসায় ও পণ্যসমূহ)। এ ধরণের ব্যবসায় হতে অর্জিত আয় নিজেকে টিকিয়ে রাখার জন্য ব্যয় হয়ে যায়। এ কারণে এ ধরণের ব্যবসায় বা পণ্য পরিহারযোগ্য বলে বিবেচিত।

উপসংহার : প্রবৃদ্ধি শেয়ার মেট্রিক্সকে প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে কোম্পানি তার ব্যবসায় খাতগুলোর অবস্থা সম্পর্কে জানতে পারে। ডগ বা কোয়েশ্চেন মার্কের সংখ্যা বেশি হলে এবং স্টার ও ক্যাস কাউজের সংখ্যা কম হলে কোম্পানির ব্যবসায় খাতে ভারসাম্যহীন অবস্থা সৃষ্টি হয় ।